chicken, hen, poultry-4155959.jpg

বাংলাদেশের সব থেকে লাভজনক ব্যাবসা হচ্ছে লাইভস্টক। আমরা সবাই জানি বাংলাদেশ একটি কৃষি প্রধান দেশ। পৃথিবীর বুকে বাংলাদেশ এর অবস্থান দেখার মত। তারপর ও বাংলাদেশে প্রোটিনএর চাহিদা তুলনামুলক কম। আর সেই প্রোটিন এর চাহিদা মেটানোর জন্য হাঁস মুরগির বাণিজ্যিক খামার করার কোন বিকল্প নাই। আমাদের দেশে হাঁস মুরগির ব্যাপক চাহিদা রয়েছে। এটি বর্তমান সময়ের একটি সফল ব্যাবসা হিসেবে ধরা হয়। আজ আমরা জানব কি ভাবে একজন সফল খামারি হতে পারেন আপনিও। এবং বাণিজ্যিক ভাবে দেশের উন্নতির জন্য কাজ করতে পারেন। এখানে পদক্ষেপ গুলো বর্ণনা করা হলঃ

লেয়ার মুরগির খামার করার পদ্ধতি

বাংলাদেশে হাঁস মুরগি পালন ব্যাক্তি এবং উদ্দক্তা উভয়ের  জন্য অনেক লাভজনক ব্যাবসা। আমাদের এই দেশ এ এই ধরনের সল্প মূল্যের প্রোটিন এর উৎসের ব্যাপক চাহিদা আছে। সুতরাং আপনি হয়ত অনেক চিন্তিত এইসব বিষয় নিয়ে। এবার আর আপনাকে এসব  পণ্য নিয়ে চিন্তা করতে হবে না। ভালভাবে করতে পারলে আপনিও হবে সফল উদ্দক্তাদের একজন।

 বাংলাদেশে এই মুরগি বা হাঁস এর ডিম বা মাংস কোনটাই খাওয়ার কোন ধর্মীয় বাধা নেই। তাই এই ব্যাবসায় নামলে পণ্য বিক্রি নিয়ে আপনাকে কোন চিন্তা করতে হবে না।

লেয়ার মুরগির খামার করার পদ্ধতি

মূলধনঃ

আমরা জানি ব্যাবসা মানেই কিছু মূল্ধন থাকতে হবে। তাই এই হাস-মুরগি পালন বা পোলট্রি মুরগি পালন ও তার ব্যাতিক্রম নয়। আপনার যদি কোন প্রকার কোন মূল্ধন না থাকে তারপর ও আপনাকে চিন্তা করতে হবে না। কারন এই ধরনের উদ্যোক্তা এবং এই ধরনের লাভ জনক ব্যাবসার জন্য আমাদের দেশে অনেক ব্যাঙ্ক আছে। যারা বসে আছে আপনাকে সাহায্য করার জন্য। সল্প লাভ এই সব ব্যাঙ্ক গুলো তে আপনি লোণ এর জন্য আবেদন করতে পারেন। খুব সহজেই পেয়ে যাবেন আশা করি।

পোলট্রি ব্যাবসা কাদের জন্য?

এই ব্যাবসা সবার জন্য উন্মুক্ত। কারন এখানে খুব বেশি শিক্ষাগত যোগ্যতা প্রয়োজন হয় না। আপনি যদি শিক্ষিত হন এবং বেকার হন। তাহলে আপনাকে স্বাগতম। আপনার জীবিকা নিয়ে ার ভাবতে হবে না। লেয়ার মুরগির খামার করার পদ্ধতি. যদি আপনি তৈরি থাকেন কিছু ককরে দেখানোর তাহলে এই ব্যাবসা হবে আপনার জীবিকা। অশিক্ষিত, সল্প শিক্ষিত, উচ্চ শিক্ষিত সবাই উদ্যোক্তা হতে পারেন। কারন আমরা জানি আমাদের বাংলাদেশে চাকরি বাজার এর খুব খারাপ অবস্থা। তাই নিজে কিছু করুন এবং অন্যদের উৎসাহিত করুন। লেয়ার মুরগির খামার করার পদ্ধতি

হাঁস-মুরগির খামার, বাংলাদেশে পোল্ট্রি ফার্মিং, কিভাবে পোল্ট্রি ফার্ম শুরু করবেন মুরগির খামার করার পদ্ধতি লেয়ার মুরগি পালন প্রশিক্ষণ।

উপযুক্ত স্থান নির্বাচন করাঃ

ফারমিং করার জন্য উপযুক্ত স্থান নির্বাচন করা খুবই  গুরুত্বপূর্ণ । আমরা বাড়ির আসেপাসে ফাকা যায়গা অথবা বাড়ি থেকে দূরে কোথাও কোন ফাকা যায়গা নিতে পারেন। তবে অবশ্যই মনে রাখতে হবে, স্থান টি নিরিবিলি হতে হবে। শান্ত পরিবেশ হতে হবে। কারন অতিরিক্ত শব্দ দূষন আপনার উৎপাদন কমিয়ে দিতে পারে।

লেয়ার মুরগির খামার করার পদ্ধতি
Layer chicks

খরচ কত হবে?

খরচ মুলত আপনার চাহিদার উপর নির্ভর করে। আপনি কত বাচ্চা নিয়ে কাজ শুরু করতে চান সেইর উপর খরচ নির্ভর করে। তবে আজ আমি ৫০০ লেয়ার এর বাচ্চা নিয়ে আনুমানিক খরচ হিসেব করে দেখাব এবং তা থেকে কত টাকা আপনার লাভ থাকে সেটিও দেখাব।

মুরগির বাচ্চা বিভিন্ন দাম এর আছে। ব্যাবসায় আশানুরূপ ফলন পেতে অবশ্যই ভালো এবং বর্ধনশীল জাত এর বাচ্চা বেছে নিন। একটি ভালো লেয়ার এর বাচ্চার দাম আনুমানি ৫০-৬০ টাকার মদ্ধেই থাকে। আমরা গড়ে ৫৫ টাকা করে ধরে হিসেব করব।

রিয়ারিং খরচঃ

টি বাচ্চার দাম ৫৫ টাকা হলে

১। ৫০০ টি বাচ্চার দাম ৫০০x৫৫ = ২৭৫০০ টাকা।

২। মেডিসিন ও টিকায় প্রতি বাচ্চার জন্য ২৫ টাকা খরচ হতে পারে। তাহলে, ২৫X৫০০ = ১২৫০০ টাকা।

৩। ৫০০ বাচার জন্য কর্মচারীর দরকার নেই । আপনি একটু কষ্ট করলে নিজেই পারবেন। (যত কম খরচ করা যায়)

৪। বিদ্যুৎ এবং জ্বালানী খরচ বছরে আনুমানিক ঃ ১২০০০ টাকা।

৫। অন্যান্য খরচঃ ৭০০০ টাকা।

৬। খাদ্যঃ  ২ কেজি/বাচ্চা  এবং  ৩৫ টাকা কেজি হলে ঃ ৩৫০০০ টাকা

৭। তুস  ঃ ৬০০০টাকা।

মোট খরচঃ ১০০০০০ টাকা ( ১ লক্ষ টাকা )

প্রডাকশন খরচঃ

১। খাদ্য ১০ কেজি/মুরগি এবং  ৩৫ টাকা কেজি হলে ঃ ১৭৫০০০ টাকা

২। মেডিসিন টিকা ১৫ টাকা/ মুরগি হলেঃ ৭৫০০ টাকা।

৩। বিদ্যুৎ ও জ্বালানী ঃ ১০০০০ টাকা।

৪। অন্যান্য খরচঃ ৭৫০০ টাকা।

মোট  প্রডাকশন খরচ ঃ ২০০০০০ (২ লক্ষ)

তাহলে রিয়ারিং এবং প্রডাকশন মিলে মোট খরচঃ ১০০০০০+২০০০০০ = ৩ লক্ষ টাকা।

৫০০ মুরগিতে লাভ কত?

একটি মুরগি ৮০ সপ্তাহ পর্যন্ত ডিম দিতে পারে। সেই হিসেব করলে ৫০০ মুরগির মধ্যে ৪৬০ টি মুরগির প্রতিটি ৪২০ টি করে ডিম দিবে। প্রতিটি ডিম ৬.৫ টাকা হলে,

সুতরাং, ৪২০ x ৪৬০ x ৬.৫ = ১২৫৫৮০০ টাকা।

বস্তা বিক্রিতে লাভঃ ৫০০ টি x ১০ টাকা = ৫০০০ টাকা

কাল মুরগি ঃ ১২০ টাকা কেজি এবং প্রতিটির ওজন ১.৫ কেজি হলে মোট লাভ,

৪৬০ x১২০x১.৫ = ৮২৮০০ টাকা।

সর্বমোট  ১৩৪৩৬০০ টাকা।

সর্বমোট লাভ থাকবেঃ  প্রায় ১০ লক্ষ টাকা।

উইকিপিডিয়া

আরও জানতে

Leave a Reply

Change Language